WB Scheme – রাজ্য সরকার ২ লাখ যুবক-যুবতীকে ৫ লাখ টাকা দেবে, হাতে আর ৭দিন সময়।

রাজ্য সরকার দেশের নাগরিকদের সাহায্যার্থে সদা তৎপর থাকে। নাগরিকদের সুবিধার জন্য রাজ্য সরকার একাধিক বড় পদক্ষেপ (WB Scheme) গ্রহন করেছেন। শুধু তাই নয় বেকার যুবক-যুবতীদের স্বনির্ভর করে তোলার জন্য নানা পদক্ষেপ নিয়েছেন। কারন রাজ্য সরকারের একমাত্র লক্ষ্যই হল বেকার যুবক-যুবতীদের স্বনির্ভর করে গড়ে তোলা। আর এবার সেই লক্ষ্যেই আর এক ধাপ এগিয়ে এল রাজ্য সরকার।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

রাজ্য সরকার প্রায় ২ লক্ষ বেকার যুবক- যুবতীদের ৫ বছরে ১০ লাখ টাকা আর্থিক সাহায্য করা হবে। বছরে ২ লাখ যুবক-যুবতীকে এই টাকা দেওয়া হবে। বেকার যুবক যুবতীদের এই টাকা দেওয়ার কারন হল তাঁদের স্বনির্ভর করা। বেকারদের স্বনির্ভর করার লক্ষ্যেই বা কর্মসংস্থানের জন্যই রাজ্য সরকার এই বড় পদক্ষেপ নিয়েছেন। বেকার যুবক যুবতীরা বিভিন্ন রকম কাজের জন্যে ব্যাংক থেকে লোন নিয়ে ব্যাবসা করতে পারবেন। রাজ্য সরকার এই লোনের গ্যারেন্টার হবে।

এই প্রকল্পের (WB Scheme) সুবিধা কারা পাবেন ?

১) এই প্রকল্প (WB Scheme) পেতে হলে ভারতীয় নাগরিক ও কমপক্ষে ১০ বছরের বাসিন্দা হতে হবে।
২) কোনও শিক্ষাগত যোগ্যতার ছাড়ায় মাত্র ১৮ বছর হলেই এখানে আবেদন করা যাবে, আর সর্বোচ্চ বয়স ৫৫ বছর।
৩) এছাড়াও যারা কর্মসাথী প্রকল্পে যারা কাজ পাননি তাঁরাও এই প্রকল্পর আবেদন করতে পারবেন।
৪) একটি পরিবারের একজন সদস্যই এর জন্য আবেদন করতে পারবেন।

আরও পড়ুন – এবার থেকে Life Certificate জমা দিতে আর ব্যাঙ্কে যেতে হবে না, জানুন নতুন নিয়ম।

আবেদন করবেন কিভাবে ?

এক্ষেত্রে অনলাইন এবং অফলাইন এই দুই মাধ্যমেই আবেদন করা যাবে। রাজ্য সরকার সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা মার্জিন মানি দেবে। ক্রেডিট গ্যারান্টি ট্রাস্ট ফর স্মল অ্যান্ড মাইক্রো এন্টারপ্রাইজ বাকি ৮৫%-এর নিশ্চয়তাও সরকার দিচ্ছে। এই প্রকল্পে অফলাইন আবেদনের জন্য এসডিও অফিস, বিডিও অফিস বা জেলার শিল্পকেন্দ্রে যোগাযোগ করতে হবে। সেখানেই অফলাইনে আবেদন করতে হবে। আর অনলাইন আবেদন করতে নিচের বিবরণ পড়ুন।

১) অনলাইনে আবেদনের জন্য অফিসিয়াল ওয়েবসাইট www.bcc.wb.gov.in এ যেতে হবে।
২) সেখানে হোমপেজের উপরে ‘Apply’ বোতামে ক্লিক করতে হবে। সেখানে “Click Here To Register এ ক্লিক করতে হবে।
৩) এরপরে নিজের নাম, ইমেল আইডি, মোবাইল নম্বরের মতো নানা তথ্য দিয়ে রেজিস্টার করতে হবে।
৪) এছাড়াও ফর্ম পূরণ করার জন্য নিজের নাম, পিতা/মাতার নাম, জন্ম তারিখ, লিঙ্গ, যোগাযোগ এবং সম্পূর্ণ ঠিকানা, শিক্ষাগত যোগ্যতা, আবেদনকারী বিভাগ, প্রকল্পের নাম, প্রকল্পের খরচ, কো-অপারেটিভ ব্যাংকের নাম ও ঠিকানা দিয়ে আবেদন সম্পন্ন করতে হবে।

আবেদনের গুরুত্বপূর্ণ তারিখ।

এক্ষেত্রে আবেদনের সময়সীমা খুব সীমিত তাই সময় থাকতে আবেদন করুন। ২ নভেম্বর অর্থাৎ বৃহস্পতিবার থেকে এই আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। যা চলতি মাসের ১০ তারিখ পর্যন্ত চলবে। পরবর্তীতে এই সময়সীমা বাড়লে তা জানতে পারবেন এই ওয়েবসাইটে, তাই আমাদের ওয়েবসাইটে নজর রাখুন।

আরও পড়ুন – Driving licence – ড্রাইভিং লাইসেন্স নিয়ে নতুন নিয়ম জারি করল কেন্দ্র ! আর দিতে হবে না টেস্ট।

JoinJoin